1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. rj.nazmul2500@gmail.com : Nazmul Hossain : Nazmul Hossain
সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ০৬:১৫ অপরাহ্ন

এবার এক অদ্ভূত ইচ্ছার কথা জানালেন শোয়েব আখতার

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০
  • ২৪ বার

করোনাভাইরাসের এই সঙ্কটে যখন সব ধরনের খেলাধুলা বন্ধ, ক্রীড়াপ্রেমী মানুষ যখন ভুগছেন একরাশ হতাশায়, তখন তাদের জন্য বিনোদনের খোরাক নিয়ে ভার্চুয়াল বেশ সরবই রয়েছেন পাকিস্তানের গতি তারকা শোয়েব আখতার। প্রতিদিনই খবরের শিরোনাম হচ্ছেন তিনি।

এবার শোয়েব আখতারের মনে এক অদ্ভূত খায়েশ জন্ম নিলো। বোলিং কোচ হতে চান ভারতের জাতীয় দলের। এই ইচ্ছের কথা তিনি জানিয়েছেন সোশ্যাল নেটওয়ার্ক ‘হ্যালো’তে এক প্রশ্নের জবাবে। তবে এ জন্য ভারতকে প্রস্তাব দিতে হবে। প্রস্তাব আসলে তিনি বোলিং কোচ হতে আগ্রহী।

শোয়েব আখতার এমন সময়ে তার ইচ্ছের কথা প্রকাশ করলেন, যখন ভারত আর পাকিস্তানের মধ্যে সমস্ত ক্রিকেট যোগাযোগ বন্ধ। ২০০৮ সালে মুম্বাই হামলার পর থেকে পাকিস্তানের সাথে কোনো সিরিজ খেলছে না ভারত। আইসিসি ইভেন্টছাড়া ভারতের মুখোমুখি হওয়ার কোনো রাস্তাই নেই পাকিস্তানের।

সর্বশেষ তো এমন হয়েছে যে, ভারত-পাকিস্তানের মুখ দেখাদেখি পর্যন্ত যেন মহা এক ‘গুনাহে’র কাজ। পাকিস্তানের কোনো ক্রিকেটারকে যখন ভারতের আইপিএলে খেলার সুযোগ দেয়া হয় না, কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয় না, তখন শোয়েব আখতারের ইচ্ছেটা একটু ‘বালখিল্যতা’র মতই শোনা যাচ্ছে।

তবে নিজের ক্যারিয়ারে বরাবরই ভারতের মুখোমুখি হয়েছিলেন শোয়েব আখতার। নিজের সেরা সময়ে বাইশ গজে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের সামনে ত্রাস হয়ে উঠতেন নিয়মিত। সেই শোয়েবের প্রত্যাশা, ভারত তাকে বোলিং কোচ হওয়রা প্রস্তাব দেবে।

নিজের ঝুলিতে কি এমন জিনিস আছে যে, ভারত তাকে প্রস্তাব দেবে বোলিং কোচ হওয়ার জন্য? পাক স্পিড স্টার আখতার বলছেন, ‘আরও আক্রমণাত্মক, দ্রুত এবং কথা বলাতে পারে এমন পেসার তৈরি করার ক্ষমতা আছে আমার। এ কারণেই প্রস্তাব পেলে ভারতের বোলিং কোচ হতে আগ্রহী আছি।’

ভারতের বর্তমান বোলিং কোচ ভরত অরুণ। ভবিষ্যতে তিনি ভারতীয় বোলিং ইউনিটের সঙ্গে যুক্ত হতে চান কিনা জানতে চাইলে, শোয়েব আখতার ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, ‘আমি অবশ্যই করব। আমার কাজ জ্ঞ্যান ছড়িয়ে দেওয়া। আমি যা শিখেছি, তা অন্যদের ছড়িয়ে দিতে পারলে খুশি হব।’

শোয়েব আরও বলেন, ‘আমি বর্তমান খেলোয়াড়দের চেয়ে আরও আক্রমণাত্মক, দ্রুত এবং আরও কথা বলা বোলার তৈরি করব যারা ব্যাটসম্যানদের শাসন করতে পারবে। যা আপনি খুব উপভোগ করবেন।’

ভারতীয় দলের পাশাপাশি আইপিএলে তার সাবেক ফ্র্যাঞ্চাইজি কলকাতা নাইট রাইডার্সেরও বোলিং কোচ হতে চান তিনি। আইপিএলের প্রথম সংস্করণে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছিলেন শোয়েব।

নিজের সেরা সময়ে শোয়েবর সঙ্গে শচিন টেন্ডুলকারের ‘ডুয়েল’ লেগে থাকতো। যা উপভোগ করতেন দর্শকরা। সাবেক এই পেসার ১৯৯৮ সালে ভারতীয় ব্যাটিং গ্রেট শচিনের সঙ্গে তার প্রথম কথোপকথনের কথা তুলে ধরে বলেন, ‘আমি ওকে আগে দেখেছিলাম; কিন্তু জানতাম না সে ভারতে কত বড় নাম ছিল।’

তবে লিটল মাস্টারের সঙ্গে তার যে দারুণ বন্ধুত্ব ছিল তাও মনে করিয়ে দেন আখতার। তিনি বলেন, ‘মনে রেখো, সে আমার খুব ভালো বন্ধু। ১৯৯৮ সালে আমি যখন দ্রুত গতিতে বোলিং করতাম, তখন ভারতীয় দর্শকরা আমাকে পছন্দ করত। ভারতে আমার বড় ফ্যান ফলোয়ার রয়েছে।’

সূত্র: জাগোনিউজ

এ জাতীয় আরো সংবাদ