1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. rj.nazmul2500@gmail.com : Nazmul Hossain : Nazmul Hossain
বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:০৬ অপরাহ্ন

কলসকাঠীতে প্রথমবারের মত শুরু হচ্ছে সপ্তাহব্যাপী বইমেলা

মেহেদী হাসান রনি
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৩৭২ বার

যতই পড়বে ততই শিখবে এ বাক্যটি সত্য অর্থাৎ শিখতে হলে অবশ্যই পড়তে হবে। কারণ জ্ঞান যেখানে সীমাবদ্ধ, বুদ্ধি যেখানে আড়ষ্ট, মুক্তি সেখানে অসম্ভব। একবিংশ শতাব্দির বিশ্বে আমাদের টিকে থাকতে হলে জ্ঞানার্জনের কোনো বিকল্প নেই। আর জ্ঞানার্জনের অন্যতম প্রধান শর্ত হলো বই পড়া। বই জ্ঞানের আধার, চির যৌবনা, চির অমলিন আনন্দের উৎস। কবি ওমর খৈয়ম স্বর্গে নিয়ে যাওয়ার যে উপকরণ তালিকা প্রস্তত করে ছিলেন সে তালিকায় বই ছিল অন্যতম, তারই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাকেরগঞ্জের কলসকাঠীতে শুরু হতে যাচ্ছে ৭দিন ব্যাপী বই মেলা। জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগীতায় কলসকাঠী বি এম একাডেমী চত্বরে এই বই মেলা অনুষ্ঠিত হবে। বইপ্রেমী ও সাধারণ মানুষের মাঝে বই পড়ার উৎসাহ নিয়ে প্রথমবারের মত এ বই মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

শুক্রবার (৬ মার্চ) কলসকাঠী বি এম একাডেমী চত্বরে শুরু হচ্ছে বইমেলা। তাই বইমেলা ঘিরে আগে থেকেই এলাকাবাসীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে ব্যাপক উন্মাদনা। ইতিমধ্যে জেলা ও জেলার বাইরে থেকে বিভিন্ন বই পাবলিশার্স মেলায় আসতে শুরু করে দিয়েছে। এবারের বইমেলাতে প্রায় ২০টি বইয়ের স্টল বসার কথা রয়েছে। ৭ দিন ব্যাপী চলা ওই বইমেলাতে কবিতাপাঠ, আবৃত্তি সহ নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলবে।

লিখিত বক্তব্যে কলসকাঠী বি এম একাডেমীর প্রধান শিক্ষব দিপক কুমার পাল বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষে তাঁর স্মৃতির প্রতি উৎসর্গিত এই বইমেলা ২০২০ এর শুভ উদ্বোধন হতে যাচ্ছে আগামী ৬ মার্চ ২০২০। বেলা তিনটায় মেলার উদ্বোধন করবেন বরিশালে জেলা প্রশাসক জনাব এস এম অজিয়র রহমান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে তিনি মেলা পরিদর্শনে যাবেন।

এবিষয়ে বি এম একাডেমীর ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি জনাব রফিকুল ইসলাম বলেন, এখানে সংস্কৃতি প্রেমী মানুষ বেশি। তাই বইমেলায় ক্রয়ের সংখ্যাও বেশি হবে আশাকরি। সাত দিন ব্যাপী বইমেলাতে চলবে নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

প্রধান উদ্যেগতা পেপারসফট পাবলিকেসন্স এর সিইও ও বি এম একাডেমীর প্রাক্তন শিক্ষার্থী এবিএম সোবাহান হাওলাদার এক ফেসবুক কমেন্টেসে, “ভবিষৎ এ কোন একজন কলসকাঠীর ইতিহাস ও ঐতিহ্যের সাথে যোগ করবেন কলসকাঠীর বইমেলাসহ আরো অনেক কিছু ইনশাআল্লাহ -মহতি উদ্যোগ ধন্যবাদ সভাপতি, প্রধান শিক্ষকসহ শিক্ষকবৃন্দ, স্কুলের অন্যান্য পরিচালনা পর্ষদকে যাহাদের উদ্যোগে বইমেলার আয়োজন হতে যাচ্ছে। সফলতা কামনা করছি”

এক বই প্রেমী সৈয়দ লোকমান বলেন, যেদিন থেকে শুনেছি বই মেলা হবে, সেদিন থেকে অত্যন্ত আগ্রহের সঙ্গে দিন কাটাচ্ছি। বই মেলা থেকে এবার অনেক বই কিনব।” তিনি আরও বলেন, বই মেলায় যারা বই কিনবেন তাদেরকে কোনভাবেই পলিথিনে বই দেয়া যাবে না। আর বইমেলায় সহীহ হাদিস, কুরআন ও অন্যান্য ধর্মীয় গ্রন্থ, শিশুতোষ বই, সায়েন্স ফিকশন, মুক্তিযুদ্ধের গল্প বেশি রাখতে হবে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ