1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. rj.nazmul2500@gmail.com : Nazmul Hossain : Nazmul Hossain
মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন

ত্যাগীদের নেতৃত্বে আনতে হবে: ওবায়দুল কাদের

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১০০ বার

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, সুসময়ে অনেকে আসে, দুঃসময় এলে অনেককে খুঁজে পাওয়া যাবে না। তাই বসন্তের কোকিলদের তাড়িয়ে ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতৃত্বকে আনতে হবে। তাদের মূল্যায়ন করতে হবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের মধ্যে যারা অনুপ্রবেশকারী, মাদক কারবারী, ব্যবসায়ী, টেন্ডারবাজ, চাঁদাবাজ তাদেরকে না বলতে হবে, নেতৃত্বে এক সময় যারা রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করেছে, ছাত্ররাজনীতি করেছে তাদের নেতৃত্বে আনতে হবে, দলকে ঢেলে সাজাতে হবে, রক্ত সঞ্চালন করতে হবে, দূষিত রক্ত বের করে দিয়ে বিশুদ্ধ রক্ত সঞ্চালন করতে হবে। কেননা বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে। দুঃসময় পেরিয়ে এগিয়ে চলা মানেই আওয়ামী লীগ, অন্ধকারকে পিছনে ফেলে আলোর মিছিল জ্বালানোই আওয়ামী লীগ। এজন্য আওয়ামী লীগের প্রত্যেক নেতাকর্মীদের স্বপ্ন দেখতে হবে, স্বপ্ন দেখাতে হবে। সাধারণ জীবনযাপন করতে হবে।

দলীয় নেতাকর্মীদের ক্ষমতার দাপট না দেখানোর আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ক্ষমতা পেয়ে দলীয় ব্যানারে ক্ষমতার দাপট কেউ দেখাবেন না। মনে রাখতে হবে, আজ ক্ষমতা আছে- এ ক্ষমতার দাপট দেখালে ক্ষমতা চিরদিন নাও থাকতে পারে।

মঙ্গলবার দুপুরে রংপুর জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, রংপুরের পুত্রবধূ প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সদিচ্ছায় মঙ্গাপীড়িত তিস্তা পারের রংপুর এখন অনেক উন্নত, এখন আর মঙ্গা নেই। রংপুরের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হয়েছে, অচিরেই রংপুর গংগাচড়া, হাজিরহাট, মিঠাপুকুর, এলাকার সড়ক উন্নয়ন শুরু হবে। বগুড়া-রংপুর ফোর লেন রাস্তার কাজসহ উত্তরাঞ্চলের ব্রিজ উন্নয়নের কাজও শুরু হয়েছে।

তিনি সম্মেলনে দুঃসময়ে রাতের বাসে রংপুর এসেছেন, বলাকা হোটেলে দুর্যোগপূর্ণকালীন সময়ে ছিলেন সেটি স্মরণ করে বলেন, তিনি রংপুরে সুস্থ থাকলে আসবেন, বার বার আসবেন বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সম্মেলন উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন এমপি। প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও রংপুর বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত জাহাঙ্গীর কবির নানক।

বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ও রংপুর বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিএম মোজাম্মেল হক, অর্থ ও পরিকল্পনাবিষয়ক সম্পাদক টিপু মুনসী এমপি, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. সাম্মি আখতার।

সভাপতিত্ব করেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ। সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রেজাউল করিম রাজু ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিউর রহমান সফি।

সঞ্চালনা করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল।

এ জাতীয় আরো সংবাদ