1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. rj.nazmul2500@gmail.com : Nazmul Hossain : Nazmul Hossain
বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৫:২২ অপরাহ্ন

নৌবাহিনীর উন্নয়নে সব ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ২৯০ বার

নেভাল একাডেমিতে একাডেমির প্রশিক্ষণার্থী ক্যাডেটদের কুচকাওয়াজ প্রত্যক্ষ ও সালাম গ্রহণ এবং চৌকস ক্যাডেটদের সনদ প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী।

নৌবাহিনীর উন্নয়নে সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া সঠিক নেতৃত্ব ও আত্মত্যাগের মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় নৌবাহিনী সদস্যদের প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান তিনি।

রবিবার চট্টগ্রামের নেভাল একাডেমিতে নৌবাহিনীর মিডশীপম্যান ২০১৭ ব্যাচ ও ডাইরেক্ট এন্ট্রি অফিসার ২০১৯ ব্যাচের নবীন কর্মকর্তাদের শীতকালীন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু দেশের প্রয়োজনে একটি আধুনিক ও শক্তিশালী নৌবাহিনী গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছিলেন। সেই মহান প্রত্যয়ের আলোকেই বর্তমান নৌবাহিনীকে আধুনিক ও ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়ন, যুদ্ধজাহাজ সংগ্রহ এবং বিদ্যমান জাহাজগুলোর অপারেশনাল দক্ষতা বৃদ্ধির বহুমুখী পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইতিমধ্যে নৌবাহিনীতে দুটি সাবমেরিন সংযোজনের মাধ্যমে ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে সুপ্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ নেভাল একাডেমিতে চালু হয়েছে উন্নত প্রশিক্ষণ সুবিধা সম্পন্ন আন্তর্জাতিক মানের সুবিশাল বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্স।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘একটি শক্তিশালী নৌবাহিনী গড়ে তোলার লক্ষ্যে মিশাইল, আরএফএফ সিস্টেম ইত্যাদিসহ আধুনিক যুদ্ধ প্রযুক্তি সংযোজনের কাজও চলমান রয়েছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সর্ববৃহৎ ঘাঁটি ‘বানৌজা শেরে-ই-বাংলা’ ও ‘বানৌজা শেখ হাসিনা’ ঘাঁটির কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ‘নবীন কর্মকর্তারা নেভাল একাডেমি থেকে অর্জিত জ্ঞান যথাযথভাবে কাজে লাগিয়ে নিজেদের যোগ্য কর্মকর্তা হিসেবে গড়ে তুলবে এবং ভবিষ্যত কর্মজীবনে এ প্রশিক্ষণ কাজে লাগিয়ে জাতীয় নিরাপত্তা ও অগ্রগতির পথে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালনে সক্ষম হবে।’

এবার দুইজন বিদেশি ও সাতজন মহিলাসহ ৭২জন নবীন কর্মকর্তা নৌবাহিনীতে কমিশন লাভ করেন। তাদের মধ্যে মিডশিপম্যান ব্যাচে রাইয়ান রহমান সকল বিষয়ে সর্বোচ্চ মান অর্জন করে সেরা চৌকস মিডশিপম্যান হিসাবে সোর্ড অব অনার লাভ করেন৷ এছাড়া ডাইরেক্ট এন্ট্রি অফিসার ব্যাচ হতে এ্যাক্টিং সাব লেফটেন্যান্ট কামরুজ্জামান শ্রেষ্ঠ ফলাফল অর্জনকারী হিসাবে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন স্বর্ণপদক লাভ করেন।

অনুষ্ঠানে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রধানগণসহ উধ্বর্তন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাসহ দেশি বিদেশি কূটনীতিক ও সমাপনী ব্যাচের কর্মকর্তাদের অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ