1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. rj.nazmul2500@gmail.com : Nazmul Hossain : Nazmul Hossain
শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০৮:১৬ পূর্বাহ্ন

বেগমগঞ্জে নির্যাতিত সেই নারীর মুখে ভয়াবহ বর্ণনা

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪৩ বার

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর সঙ্গে দেখা করেছেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. আনোয়ার হোসেন (পিপিএম)। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় ভুক্তভোগীর কাছ থেকে ঘটনার বিস্তারিতও শুনেছেন তিনি। বেগমগঞ্জ মডেল থানায় ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের সঙ্গে একান্তে কথা বলেন ডিআইজি।

৩০ মিনিটের মতো ভুক্তভোগী ও তার স্বজনদের সঙ্গে আলাপের পর স্থানীয় সংবাদকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি। এ সময় মো. আনোয়ার হোসেন (পিপিএম) জানান, নির্যাতিতা নারীর মুখ থেকে তিনি বিস্তারিত শুনেছেন। এ ঘটনায় কী করণীয় সে বিষয়ে পুলিশ সদস্যদের দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করছে পুলিশ। ওই নারী ও তার স্বজনদের নিরাপত্তার বিষয়টিতে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে পুলিশ।

ডিআইজি আনোয়ার হোসেন (পিপিএম) বলেন, ‘নোয়াখালীতে দেলোয়ার বাহিনীর মতো তথাকথিত যেসব বাহিনী রয়েছে সেগুলো চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।’

পরে নোয়াখালীর পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান শেখ ও বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি মো. হারুনুর রশিদ চৌধূরীসহ বেগমগঞ্জের একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকায় ওই নারীকে নির্যাতন করা সেই টিনের ঘর পরিদর্শনে যান চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি।

এদিকে বেগমগঞ্জের ঘটনায় ইউপি সদস্যসহ আরও দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে ঢাকা ও নোয়াখালীতে এখন পর্যন্ত মামলার এজাহারভুক্ত চারজনসহ মোট ছয়জন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান শেখ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গ্রেপ্তারকৃতদের একজন মামলার এজাহারের ৫ নম্বর আসামি মো. সাজু (২১)। আরেকজন নির্যাতনের শিকার নারীর ২২ ধারার জবানবন্দিতে অভিযুক্ত একলাশপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগ (৪৮)।

গতকাল সোমবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান শেখ জানান, পলাতক আসামি সাজুকে রাত দেড়টার দিকে ঢাকার শাহবাগ এলাকা থেকে জেলা পুলিশের একটি দল গ্রেপ্তার করে। আর মোয়াজ্জেম হোসেনকে রাত সাড়ে ১২টার দিকে জয় কৃষ্ণপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, তিনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি।

জবানবন্দিতে নির্যাতনের শিকার ওই নারী অভিযোগ করেন, তিনি নির্যাতনের ঘটনাটি ঘটার সাত থেকে আটদিন পর ইউপি সদস্যের বাড়িতে গিয়ে জানান। ইউপি সদস্য তাকে ঘটনাটি চেপে যেতে বলেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও বলেন, গ্রেপ্তার দুই আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ মঙ্গলবার আদালতে হাজির করা হতে পারে। এ ছাড়া ঢাকায় গ্রেপ্তার মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেন বাদলকে গত রোববার রাতে বেগমগঞ্জ থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে র‌্যাব। তাকেও আজ আদালতে হাজির করা হবে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ