1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. rj.nazmul2500@gmail.com : Nazmul Hossain : Nazmul Hossain
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন

সিডনি আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন, ২০২০
  • ২৮৯ বার

বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ২৩শে জুন। গতকাল (মঙ্গলবার)দলটির ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনের লক্ষ্যে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিস্থ ল্যাকেম্বার বনফুল রেস্টুরেন্টে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনি, অস্ট্রেলিয়ার উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠার ইতিহাস, বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন ও প্রধানমন্ত্রীর বর্তমান সফল নেতৃত্ব নিয়ে আলোচনা করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনি, অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি গাউসুল আলম শাহজাদার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আজাদের সঞ্চালনায় পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার ধর্মবিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ। আলোচনা অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনায় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ও আইনজীবী সিরাজুল হক বলেন, আজ আমাদের প্রাণের সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, এই দিনটিতে ৭১ সংখ্যাটি বিশেষ তাৎপর্য বহন করছে। ৭১ সংখ্যাটি আমাদের স্বাধীনতার সাল ১৯৭১-এর কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। কারণ বঙ্গবন্ধুর প্রজ্ঞা ও ভালোবাসায় যদি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠিত না হত তাহলে বাংলাদেশ নামক স্বাধীন ভূখণ্ড আমরা পেতাম না। তাই আজকের এই দিনে বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি ও বর্তমানে নৌকার মাঝি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য কামনা করছি।

আলোচনায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনি, অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি গাউসুল আলম শাহজাদা বলেন, বাংলাদেশ মানে আওয়ামী লীগ, আর আওয়ামী লীগ মানেই বাংলাদেশ। দুটি শব্দই জাতির ইতিহাসে একে অপরের পরিপূরক। তাই ইতিহাসে যতদিন বাংলাদেশ থাকবে ততদিন আওয়ামী লীগ থাকবে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী সিডনি, অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আজাদ তাঁর বক্তৃতায় বলেন, আজকে আমরা যে বাংলা ভাষায় কথা বলি, বাঙালি ও বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্বে গর্বভরে পরিচয় দেই, তার সমস্ত কৃতিত্বের দাবিদার আমাদের প্রাণের সংগঠন বাংলাদেশ আ্ওয়ামী লীগ ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। কারণ একটা কথা মনে রাখতে হবে, বঙ্গবন্ধু না হলে আওয়ামী লীগ হত না, আর আওয়ামী লীগ না হলে বাংলাদেশ হত না। তাই এই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে জাতির জনক ও তাঁর পরিবারের সকলের প্রতি শ্রদ্ধা নিবদেন করছি।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি, বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ড. রতন কুন্ডু বলেন, ১৯৪৯ সালের ২৩শে জুন থেকে আজ অবধি বাংলাদেশের মানুষের যত অর্জন তার প্রত্যেকটির পেছনে চালিকা শক্তি হিসেবে কাজ করেছে বঙ্গবন্ধুর প্রতিষ্ঠিত দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। তাই বাংলাদেশের ইতিহাস লিখতে গেলে বারবার আওয়ামী লীগের নিকট ফিরে যেতে হবে।

আলোচনার এক পর্যায়ে বাসভূমি টিভির কর্ণধার ও লেখক আকিদুল ইসলাম বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে এতটা সফল কোনো রাজনৈতিক দলের পাওয়া সত্যি দুষ্কর। কেননা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক সফলতার বড় প্রমাণ এই দলটি একটি দেশের জন্ম দিয়েছে।আর তা সম্ভব হয়েছে কারণ আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মত একজন নেতা ছিলেন।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি আমিনুল ইসলাম রুবেল বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এমন একটি সংগঠন, যে সংগঠনের নেতৃত্বে বাংলাদেশের স্বাধিকার আন্দোলন, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলন এবং বাংলাদেশের মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক নিরাপত্তার জন্য সব সময় কাজ করে গেছে, ইতিহাসই তার সাক্ষী।

এছাড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিডনি প্রেস এন্ড মিডিয়ার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার ত্রাণ সম্পাদক আবুল বাশার রিপন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সহ-সভাপতি ড. তারিকুল ইসলাম ও জহিরুল ইসলাম সরকার, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির কোষাধ্যক্ষ আব্দুস সালামসহ প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সিনিয়র সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন লালটুর শোক প্রস্তাবনায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা মোহাম্মদ নাসিম, ধর্মমন্ত্রী মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, সিলেটের সাবেক মেয়র বদরুদ্দিন কামরানসহ দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারীদের জন্য মাগফেরাত কামনা করা হয়।

আলোচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ব্যাংকস্টাউন সিটি কাউন্সিলের সাবেক কাউন্সিলর মোহাম্মদ শাহে জামান টিটো, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান কচি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সাংগঠনিক সম্পাদক দিদার হোসেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার কোষাধ্যক্ষ আশরাফুল আলম লাবু, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সহ-সভাপতি মিল্টন আহমেদ ও শফিক চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফুয়াদ শিহাব, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হাসান, জুয়েল হাওলাদার, আবুল কাশেম, রেজাউল করিম, ইমরান হোসেন ও ম্যান্থন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক শাহীন রেজা, বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগ, অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি জাকারিয়া আল স্বপন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অস্ট্রেলিয়ার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পল সৈকত, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সিডনির সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, হাসান মেহেদী, কাজী আদনান মোস্তফা, রানা শরীফ, মিরাজ খান, হাবিব হাসান, কাউয়ুম আজাদ,শাহীন, কামাল ও আনোয়ার প্রমুখ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বাসভূমি টিভির কর্ণধার ও লেখক আকিদুল ইসলামের সহধর্মিণী শামীমা সুমি।

উল্লেখ্য, আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হয় এবং মোনাজাতের মাধ্যমে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করা হয়। পরিশেষে সভাপতির সমাপনী বক্তৃতা ও এক প্রীতিভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের যবনিকা হয়।

এ জাতীয় আরো সংবাদ