1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৬:৫৫ অপরাহ্ন

কলেজছাত্রী নিয়ে রিসোর্টে ধরা ওসি!

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ২৫ বার

গাজীপুরের জয়দেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ মিজানুর ইসলামের পরকীয়া প্রেম ও বিয়ে নিয়ে তোলপাড় চলছে। বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) ওসি’র বিয়ের নথি ভাইরাল হয়েছে। এদিকে ঘটনা জানাজানির পর ওসিকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি জয়দেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হিসেবে যোগদান করেন সৈয়দ মিজানুর ইসলাম। এর আগে তিনি মানিকগঞ্জ সদর থানার ওসি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সে সময় মানিকগঞ্জের সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রীর (২৪) সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন। সম্প্রতি ওই ছাত্রী গাজীপুরে এলে তাকে স্থানীয় শালবন গ্রিন ভিউ রিসোর্টে থাকার ব্যবস্থা করেন ওসি মিজানুর ইসলাম। বুধবার (১৭ জানুয়ারি) তাদের দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য হলে বিষয়টি জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নজরে আসে।
পরবর্তীতে তড়িঘড়ি করে বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) ১০ লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করে তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

বিয়ের নথিতে দেখা যায়, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ২৮নম্বর ওয়ার্ডের নিকাহ রেজিস্ট্রার খন্দকার আব্দুল মতিন তাদের বিয়ে রেজিস্ট্রি সম্পন্ন করেছেন। এতে বরের কোনো স্ত্রী নেই বলে উল্লেখ করা হয়েছে। যদিও ওসি বিবাহিত। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। এ ঘটনার পর ওসি সৈয়দ মিজানুর ইসলামকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। তার স্থলে জয়দেবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শরিফুল ইসলামকে অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে ওসি’র দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার হাটিপাড়া ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য তাজুল ইসলাম স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বলেন, ‘ওই ছাত্রী মানিকগঞ্জ সদরে থেকে পড়াশোনা করেন। তার সঙ্গে এক পুলিশের সম্পর্কের বিষয়ে কিছুদিন আগে এলাকায় জানাজানি হয়। গাজীপুরে পুলিশের সঙ্গে তার বিয়ের ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনা শুরু হয়।’

জয়দেবপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শরিফুল ইসলাম সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘শুক্রবার থেকে অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে আমি ওসির দায়িত্ব পালন করছি।’
গাজীপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিরাজুল ইসলাম সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘জয়দেবপুর থানার ওসি সৈয়দ মিজানুর ইসলামের স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। এরপরও গোপনে এক নারীর সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে বলে জানা গেছে। এক সপ্তাহ আগে ওই নারী গাজীপুরে এলে স্থানীয় শালবন নামে একটি রিসোর্টে রাখেন ওসি মিজানুর। এর মধ্যে কোনো এক সময় তাদের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। পরে ওই নারী ওসির অজান্তে বিষয়টি পুলিশ সুপারকে জানায়। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।’

গাজীপুর জেলা পুলিশ (এসপি) সুপার কাজী শফিকুল আলম বলেন, ‘দায়িত্বরত অবস্থায় নৈতিক স্খলনজনিত কারণে জয়দেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সৈয়দ মিজানুর ইসলামকে থানা থেকে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।’

এ জাতীয় আরো সংবাদ