1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৫১ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারতে সিরাজদিখান চেয়ারম্যান ফোরাম! মুন্সীগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে হেভিওয়েট প্রার্থী মোঃ মাসুদ লস্কর! নিভৃতচারী শেখ রেহানা সিরাজদিখানে তারাবী নামাজে ভুল ধরাকে কেন্দ্র করে ঈমাম তাড়ানোর পায়তারা! সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদে শক্ত প্রার্থী এডভোকেট কে এম হোসেন আলী হাসান প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে উন্নয়নের মহাকাব্য রচনার আহ্বান জিটুর সিরাজদিখানে শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ইছাপুরায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভা! সিরাজদিখানে বিএনপির বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৫ পরিবারকে ঘর উপহার

জুতা পায়ে শহীদ মিনারে অধ্যক্ষ, পরে গণধোলাই

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৫৩৩ বার

কুড়িগ্রামের উলিপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ আবু তাহের জুতা পায়ে শহীদ বেদীতে উঠে বিজয় দিবসের পুষ্পার্ঘ অর্পণ করার ঘটনায় এলাকায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। সোমবার সকালে কুড়িগ্রামের উলিপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজ চত্বরের শহীদ মিনারে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সকাল ৮টার দিকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ আবু তাহের তার সহকর্মীদের নিয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করতে যান। এ সময় তিনি জুতা পায়ে পুষ্পার্ঘ হাতে নিয়ে শহীদ মিনার বেদীতে উঠেন। এ সময় তার সহকর্মীরা জুতা খুলে উঠতে বললেও তিনি জুতা খুলেননি বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে অধ্যক্ষ মোঃ আবু তাহেরের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জুতা পায়ে ওঠার কথা স্বীকার করে বলেন, অজান্তে জুতা পায়ে উঠেছি। তাতে আপনাদের কোন সমস্যা?

এদিকে জুতা পায়ে শহীদ বেদীতে ওঠার ছবি মুহূর্তে ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে গেলে স্থানীয়রা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা দুপুরে ওই অধ্যক্ষকে কলেজ ক্যাম্পাসে গণধোলাই দেয়। তিনি বর্তমানে উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন মেডিকেল অফিসার জাকিয়া সুলতানা।

তিনি জানান, তার শরীরে কয়েক জায়গায় ফুলা ও জখমের চিহ্ন রয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সুভাষ চন্দ্র সরকার বলেন, তার শরীরে সামান্য আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে উলিপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ সরকার ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে অভিযুক্ত অধ্যক্ষের অবিলম্বে অপসারণ ও বিচার দাবি করেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম হোসেন মন্টু বলেন, শহীদদের প্রতি চরম অবমাননা। আমি তার এ আচরণের নিন্দাসহ বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাই।

এ ব্যাপারে কুড়িগ্রাম-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক এম এ মতিন বলেন, যারা দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করেন না, তাদের কোনো না কোনো কর্মের মধ্য দিয়ে সেই চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটে। এ ঘটনার নিন্দা জানানোর ভাষা আমার নেই। অবশ্যই তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া উচিৎ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এ জাতীয় আরো সংবাদ