1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
মঙ্গলবার, ২১ জুন ২০২২, ০৮:২৯ অপরাহ্ন

শীত নিয়ে যে বার্তা দিলো আবহাওয়া অফিস

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ৫৩২ বার

শীতের হিমেল হাওয়ায় কাঁপছে দেশ। বৃষ্টির পর রোববার মৌসুমের দ্বিতীয় শৈত্যপ্রবাহ শুরুর আভাস দিয়েছিল আবহাওয়া অধিদপ্তর। কিন্তু শৈত্যপ্রবাহ নামল বৃষ্টির আগেই।

বুধবার মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। দেশের উত্তরের এ জেলায় তাপমাত্রার পারদ নেমে আসে ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের পাশাপাশি টাঙ্গাইল ও চুয়াডাঙ্গা জেলায় বয়ে যাচ্ছে মৃদু থেকে মাঝারি মাত্রার শৈত্যপ্রবাহ।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থান করছে। এছাড়া মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

এ অবস্থায় ফরিদপুর, মাদারীপুর, কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চলসহ খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র আকাশ আংশিক মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। একই সঙ্গে বৃষ্টির প্রভাবে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে।

আজ (বৃহস্পতিবার) ঢাকায় সূর্যোদয় হয়েছে ভোর ৬টা ৩৯ মিনিটে এবং সূর্যাস্ত হবে সন্ধ্যা ৫টা ১৯ মিনিটে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার পঞ্চগড়ের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৯ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার তা নেমে দাঁড়ায় ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। সামনে তাপমাত্রা আরো কমে আসতে পারে।

দিনাজপুরে গত ছয় দিন ধরে মৃদু শৈত্যপ্রবাহের পর গতকাল বুধবার থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। গতকাল দিনাজপুরে তাপমাত্রা ৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন জানান, পশ্চিম দিক থেকে বায়ু প্রবাহিত হওয়ায় শীতের তীব্রতা বাড়ছে। আগামী এক-দুই দিন দিনাজপুরে শীতের তীব্রতা আরো বেড়ে তাপমাত্রা আরো নেমে আসবে। শুক্রবার দিনাজপুরে বৃষ্টি হতে পারে। বৃষ্টির পর শীত আরো বেশি অনুভূত হবে।

কুড়িগ্রামে শীতের প্রকপে হাসপাতালে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত রোগী ভর্তি বেড়েছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শীতার্তদের কম্বল বিতরণ করা হচ্ছে।

 

এ জাতীয় আরো সংবাদ