1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
  4. rj.nazmul2500@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
সিরাজদিখানে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীদের জীবন বৃত্তান্ত সংগ্রহ শুরু প্রাচ্য-পাশ্চাত্যে ব্যবসায়িক সেতুবন্ধন গড়ে তুলবে বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী সিরাজদিখানে পেরিলা প্রদর্শনীর মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে বিকল্পধারা হতে কোন প্রার্থী দিব না: সাংসদ মাহি বি চৌধুরী সিরাজদিখানে ১০ লাখ টাকা ধার দিয়ে বেকায়দায় একটি পরিবার! সিরাজদিখানে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত ইউপি নির্বাচনে কেয়াইন ২নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য হতে চান রুবেল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বালুচর ১নং ওয়ার্ড সদস্য হতে চান ওয়াসিম আহমেদ ওমানকে হারিয়ে বিশ্বকাপে টিকে রইলো বাংলাদেশ সিরাজদিখানে ঈদ-এ মিলাদুন্নবী উপলক্ষে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ তদন্তে আইসিসির অনুমোদন

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯
  • ২৩৬ বার

মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের দেশটির সেনাবাহিনীর দমন অভিযানে মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটিত হয়েছে কিনা, তা তদন্তের জন্য অনুমোদন দিয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) আইসিসির এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, প্রসিকিউশনের আবেদনে বিচারকরা এই অনুমোদন দিয়েছেন।

এতে বলা হয়, এটা বিশ্বাস করার যৌক্তিক ভিত্তি রয়েছে যে, ব্যাপকভাবে এবং/অথবা সিস্টেমেটিক সহিংস কর্মকাণ্ড ঘটানো হয়ে থাকতে পারে, যা মিয়ানমার ও বাংলাদেশ সীমান্ত পাড়ির পেছনে মানবতাবিরোধী অপরাধ হিসেবে গণ্য হয়ে থাকতে পারে। এজন্য বাংলাদেশ/মিয়ানমারের পরিস্থিতি তদন্তের অনুমোদন দিয়েছে চেম্বার।

২০১৭ সালের ২৫ অগাস্ট রাখাইনে নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর ‘বিদ্রোহীদের’ হামলার কারণ দেখিয়ে রোহিঙ্গাদের গ্রামে গ্রামে অমানবিক অভিযান শুরু করে দেশটির সেনাবাহিনী। জীবন বাঁচাতে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের অভ্যন্তরে চলে আসে। প্রায় সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশের কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়।

জাতিসংঘ ওই অভিযানকে ‘জাতিগত নির্মূল অভিযান’ আখ্যা দিলেও মিয়ানমার বলছে ‘সন্ত্রাসীদের’ বিরুদ্ধে তাদের অভিযান, কোনো জাতিগোষ্ঠীকে নির্মূল করতে নয়।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে রোহিঙ্গাদের বিতাড়নে মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটনের জন্য মিয়ানমারের বিচারের এখতিয়ার আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের রয়েছে বলে সিদ্ধান্ত আসে। যার পরেই শুরু হয় প্রাথমিক তদন্ত।

প্রাথমিক তদন্ত শেষে পূর্ণ তদন্ত শুরু করার জন্য আইসিসির কৌঁসুলি ফাতোও বেনসুদার একটি আবেদন করেন। বিচারকরা তাতে অনুমোদন দেওয়ায় রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংতার অভিযোগের তদন্তে এটাই হচ্ছে প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক আদালতের উদ্যোগ।

সূত্র : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

এ জাতীয় আরো সংবাদ