1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জানুয়ারিতে সড়কে ঝরেছে ৫৮৫ প্রাণ অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আলোচনা সভা সিরাজদিখানে অযত্ন অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে ভ্রাম্যমান লাইব্রেরী, দেখার কেউ নেউ! জনস্বার্থে দেওয়া স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে সাংবাদিকের উপর হামলা! তৃণমূল সাংবাদিক মহল ক্ষুব্ধ। সিরাজদিখানে শেখ সাহেব খ্যাত রশিদ মাস্টারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্বরণ সভা! সিরাজদিখানে লাউ গাছ কেটে কৃষকের ক্ষতি সাধনের অভিযোগ! শেখ সাহেব খ্যাত রশিদ মাস্টারের ১৭ তম মৃত্যু বার্ষিকী আজ বিশ্বকাপ ফাইনাল ঘিরে ঢাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা জোরদার! ফাইনালের আগে মেসিকে ছেলের আবেগঘন চিঠি! বিশ্বকাপঃ আজ সবকিছুই লিওনেল মেসি ও আরজেন্টিনার জন্য!

অবশেষে বিজিএমইএ ভবন ভাঙা শুরু

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৬৩৪ বার

রাজধানীর কারওয়ান বাজার সংলগ্ন নির্মিত পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ ভবন ভাঙা শুরু হয়েছে। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। এ সময় ফায়ার সার্ভিসসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, রাজউক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ভবন ভাঙার কার্যক্রম পরিচালনা এবং দুর্ঘটনা মোকাবেলায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সমন্বয়ে দু’টি টিম গঠন করা হয়েছে। যারা বিজিএমইএ ভবন ভাঙায় সার্বক্ষণিক মনিটরিং করবেন।

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. ইফতেখার হোসেন এ সব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জলাধার আইন লঙ্ঘনের দায়ে সর্বোচ্চ আদালত ১৫ তলা বিশিষ্ট বিজিএমইএ ভবন ভাঙার আদেশ দেওয়ার পর গত এপ্রিলে ভবনটি ভাঙা এবং ভবনের ব্যবহারযোগ্য মালপত্র কিনতে আগ্রহী প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে দরপত্র আহ্বান করে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। এর আগে বিজিএমইএ ভবনকে হাতিরঝিল প্রকল্পের ‘ক্যান্সার’ আখ্যায়িত করে হাইকোর্ট ২০১১ সালে এক রায়ে ইমারতটি ভেঙে ফেলার নির্দেশ দেন। আপিলে নিজেদের পক্ষে রায় না পাওয়ার পর তিন দফা সময় প্রার্থনা করে ভবনটির মূল মালিক তৈরি পোশাক উৎপাদন ও রপ্তানিকারক উদ্যোক্তাদের সংগঠন বিজিএমইএ।

সর্বশেষ আদালতের দেওয়া সময়সীমা গত ১২ এপ্রিল শেষ হয়। এরপর ১৫ এপ্রিল বিজিএমইএ ভবনের মালপত্র সরিয়ে নিতে একদিন সময় বেঁধে দেয় রাজউক। পরে সময় বাড়ানো হয় আরও কয়েক দিন। ভবনে থাকা বিজিএমইএসহ ১৯টি প্রতিষ্ঠান তাদের মালপত্র সরিয়ে নিলে ভবনটি সিলগালা করে দেয় রাজউক। এরপর থেকে গত ৯ মাস ভবনটি পরিত্যক্ত অবস্থায় ছিল।

এ জাতীয় আরো সংবাদ