1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জানুয়ারিতে সড়কে ঝরেছে ৫৮৫ প্রাণ অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আলোচনা সভা সিরাজদিখানে অযত্ন অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে ভ্রাম্যমান লাইব্রেরী, দেখার কেউ নেউ! জনস্বার্থে দেওয়া স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে সাংবাদিকের উপর হামলা! তৃণমূল সাংবাদিক মহল ক্ষুব্ধ। সিরাজদিখানে শেখ সাহেব খ্যাত রশিদ মাস্টারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্বরণ সভা! সিরাজদিখানে লাউ গাছ কেটে কৃষকের ক্ষতি সাধনের অভিযোগ! শেখ সাহেব খ্যাত রশিদ মাস্টারের ১৭ তম মৃত্যু বার্ষিকী আজ বিশ্বকাপ ফাইনাল ঘিরে ঢাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা জোরদার! ফাইনালের আগে মেসিকে ছেলের আবেগঘন চিঠি! বিশ্বকাপঃ আজ সবকিছুই লিওনেল মেসি ও আরজেন্টিনার জন্য!

নিষেধাজ্ঞার অজুহাতে বেড়েছে সবজির দাম

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৯ এপ্রিল, ২০২১
  • ২০৪ বার

লকডাউনের পঞ্চম দিন রাজধানীর অধিকাংশ বাজারে বেড়েছে শাক-সবজির দাম। সবজিভেদে কেজিপ্রতি ৫-১০ টাকা এবং আঁটিপ্রতি শাক ১০-১৫ টাকা বেশি দামে বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) রাজধানীর শুক্রাবাদ, কলাবাগান, কাঁঠালবাগান ও নিউমার্কেট কাঁচাবাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, সপ্তাহের ব্যবধানে আলু, টমেটো, গোল ও লম্বা বেগুন, করলা,পটল, লাউ, মটরশুঁটি, কাঁচা পেঁপে, শসা, গাজর, বরবটি, চিচিঙ্গা, মিষ্টি কুমড়া, ঝিঙাসহ প্রায় সবজির দাম ঊর্ধ্বমুখী। এছাড়া পালং শাক, লাল শাক, কলমি শাক ও কচু শাকসহ সব ধরনের শাকের দামও বেড়েছে। তবে স্থিতিশীল রয়েছে নিত্যপ্রয়োজনীয় চাল, ডাল, তেল, আটা, লবণ, পেঁয়াজ, রসুন, আদাসহ অন্যান্য পণ্যের দাম।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, বাজারে শাক-সবজির পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে। কিন্তু কঠোর নিষেধাজ্ঞার কারণে পরিবহন খরচ বেড়ে যাওয়ায় বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। তবে সরবরাহ ঠিক থাকলে দ্রুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসবে।পরিবহন খরচ বেড়ে যাওয়ায় সবজির দাম ঊর্ধ্বমুখী
সবজির বাজার ঘুরে দেখা যায়, আলু ২৫ টাকা, টমেটো ৫০, গোল বেগুন ৬০ টাকা, লম্বা বেগুন ৫০, করলা ৬৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া লাউ প্রতি পিস ৪৫-৫০ টাকা, কাঁচা পেঁপে কেজি ৩৫ টাকা, শসা ৫০ টাকা, গাজর ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। শজনে ডাটা ৭০ টাকা, বরবটি ৬৫-৭০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া আকারভেদে ৯০-১০০ টাকা। কচুর লতির আঁটি ৪৫-৫০ টাকা, ঢেঁড়শ প্রতি কেজি ৬০-৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

অথচ গত সপ্তাহেও এসব সবজির দাম ১০ থেকে ১৫ টাকা পর্যন্ত কম ছিল।

নিউমার্কেট কাঁচা বাজারের সবজি বিক্রেতা চন্দন রায় বলেন, বাজারে পর্যাপ্ত পরিমাণে শাক-সবজি রয়েছে। স্বাভাবিকভাবে শুক্রবারসহ ছুটির দিনে পাইকারি বাজারেই দাম বেশি থাকে। তার ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞার কারণে পণ্য পরিবহনে বাড়তি খরচ হচ্ছে। ফলে সেই প্রভাবেও দাম বেড়েছে।শসা প্রতিকেজি ৫০ ও গাজর ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে
এদিকে কঠোর নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও কমেছে সব ধরনের মুরগির দাম। আজ প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি ব্রিক্রি হচ্ছে ১৫০ টাকায়। গত সপ্তাহে যা বিক্রি হয় ১৬০ থেকে ১৭০ টাকা কেজিতে। এছাড়া লেয়ার মুরগি বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ২২০ টাকায়। যা আগে ছিল ২৪০-২৫০ টাকায়। সোনালি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৪০-২৫০ টাকায়। যা আগে বিক্রি হয় ৩৪০-৩৫০ টাকা প্রতি কেজি। এছাড়া গরুর মাংস ৬০০ টাকা ও খাসির মাংস প্রতি কেজি ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ