1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
রবিবার, ০৭ অগাস্ট ২০২২, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারতে সাবেক ছাত্রলীগ ফোরাম! সিরাজদিখানে হামলার ঘটনায় মামলা, সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিককে প্রান নাশের হুমকি! মুন্সীগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি বহাল সিরাজদিখানে খালেদা জিয়া ও আব্দুল হাইয়ের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সিরাজদিখানে জুয়া খেলতে বাঁধা দেয়ায় বৃদ্ধের মাথায় কোপ ও মারধর! উন্নত চিকিৎসায় ঢাকায় প্রেরণ। ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতির প্রথম মৃত্যু বার্ষিকীর স্মরণসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ সিরাজদিখানে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৮ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও সজিব ওয়াজিদ জয়ের জন্মদিন পালন সিরাজদিখানে স্বর্ণের দোকানে চুরির অভিযোগ! সাশ্রয়ী হওয়ার পাশাপাশি খাদ্য উৎপাদনে জোর প্রধানমন্ত্রীর সিরাজদিখানে জাল দলিল করে ভাইয়ের সম্পত্তি বোনের বিক্রি, ফেরৎ চাওয়ায় মারধর!

বিয়ের উপহার ‘ডাবল সেঞ্চুরিয়ান’ পেঁয়াজ

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৫৭১ বার

পেঁয়াজের দাম ডাবল সেঞ্চুরি ছাড়িয়েছে। এক কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৩০-২৫০ টাকা। এই অবস্থায় পেঁয়াজের লাগামহীন মূল্য বৃদ্ধিতে মানুষের ক্ষোভ যখন চরমে, ঠিক সে সময়েই পেঁয়াজ নিয়ে চলছে নির্মম রসিকতা। শুক্রবার দুপুরে বন্ধুর বৌভাতে শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে দেয়া হয়েছে পেঁয়াজ। কুমিল্লার সদর উপজেলার কালখাড়পাড় এলাকায় রিপন মিয়ার বাড়িতে ঘটেছে ব্যতিক্রমী এ ঘটনা।

ঘটনাটি নিয়ে অনুষ্ঠানে আসা অতিথিদের মাঝে বেশ হাস্যরস তৈরি হয়। এদিকে এমন উপহার দেয়ায় ওই এলাকায় ঘটনাটি রীতিমতো সাড়া ফেলেছে।

জানা গেছে, বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মচারী ও কালখাড়পাড় এলাকার হাজী আবদুর রহিমের ছেলে ইমদাদুল হক রিপনের বিয়ে হয়। শুক্রবার তার বাড়িতে বৌ-ভাতের আয়োজন করা হয়। এদিন দুপুরে রিপনের তিন বন্ধু সহিদ, শিপন ও শাহজাহান পাঁচ কেজি পেঁয়াজ বাজার থেকে ১ হাজার টাকায় কেনেন। এরপর সেই পেঁয়াজ রেপিং করে বন্ধুর বাড়িতে দাওয়াত খেতে যান। উপহার হিসেবে রেপিং করা পেঁয়াজের বাক্স দেন তারা।

বিশেষ প্রক্রিয়ায় করা ওই বক্সের বাইরে থেকে পেঁয়াজ দেখার ব্যবস্থাও ছিল। তাই বিয়ে বাড়িতে যারাই এসেছিলেন তাদের সবার দৃষ্টি ছিল ওই বাক্সের দিকে। কেউ কেউ দিনভর মোবাইলে ব্যতিক্রমী ওই পেঁয়াজের বাক্সের ছবিও তুলে নেন।

দিন গড়িয়ে বিকেলে অনুষ্ঠান যখন শেষ হয় তখন বাক্স খোলার পালা। সবাই জানতো ভেতরে পেঁয়াজ, তবুও বিয়ে বাড়ির কারও আগ্রহের কমতি ছিল না ওই বাক্স নিয়ে। বাক্স খোলার পর অনেকেই ব্যস্ত হয়ে পড়েন ভিডিও ও ছবি তুলতে।

পেঁয়াজ উপহার পেয়ে বর ইমদাদুল হক রিপন বলেন, ‘বিয়ের অনুষ্ঠানে আমার নিকট এ পুরস্কার আমরণ স্মরণীয় হয়ে থাকবে। আমার বিয়েতে যত পুরস্কার পেয়েছি সব চেয়ে মূল্যবান মনে করবো এই পেঁয়াজের উপহারকে। কারণ পুরো বাংলাদেশ এখন পেঁয়াজের গরমে অস্থির। শুরু হয়েছে পেঁয়াজ রাজনীতি। হয়তো আমার বন্ধুদের এ পেঁয়াজ উপহার একটি নীরব প্রতিবাদও হতে পারে।’

বৌভাতে মূল্যবান ও ব্যতিক্রমী উপহার পেঁয়াজ দেওয়ার জন্য বন্ধুদের ধন্যবাদও জানান বর রিপন।

উল্লেখ্য, গত সেপ্টেম্বরের শেষ থেকে অস্থির হয়ে ওঠে পেঁয়াজের বাজার। ২৯ সেপ্টেম্বর পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণা করে ভারত। বাংলাদেশ আমদানির ক্ষেত্রে ভারতের ওপরই নির্ভরশীল। ফলে দেশের বাজারে লাফিয়ে লাফিয়ে দাম বাড়তে থাকে।

গত বৃহস্পতিবার প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৩০ টাকা দরে বিক্রি হলেও গতকাল শুক্রবার ২৪০ থেকে ২৫০ টাকায় বিক্রি হয়। ভারতীয় পেঁয়াজ না আসা পর্যন্ত এ দাম বাড়তে থাকবে বলে জানান পাইকারি ব্যবসায়ীরা। বর্তমানে মিয়ানমার ও মিসর থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৩০ টাকা কেজি। রাজধানীর কারওয়ানবাজার, হাতিরপুল বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা যায়।

এ জাতীয় আরো সংবাদ