1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারতে সিরাজদিখান চেয়ারম্যান ফোরাম! মুন্সীগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে হেভিওয়েট প্রার্থী মোঃ মাসুদ লস্কর! নিভৃতচারী শেখ রেহানা সিরাজদিখানে তারাবী নামাজে ভুল ধরাকে কেন্দ্র করে ঈমাম তাড়ানোর পায়তারা! সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদে শক্ত প্রার্থী এডভোকেট কে এম হোসেন আলী হাসান প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে উন্নয়নের মহাকাব্য রচনার আহ্বান জিটুর সিরাজদিখানে শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ইছাপুরায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভা! সিরাজদিখানে বিএনপির বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৫ পরিবারকে ঘর উপহার

প্যাকেজ প্রস্তাবের বিপরীতে সরকারের তিরস্কার পেয়েছি: ফখরুল

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ৪৩১ বার

বিএনপরি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জনগণের ট্যাক্স ভ্যাটের টাকা থেকেই অর্থের যোগান আসবে। বিএনপির ইকোনোমিক প্যাকেজ প্রস্তাবের বিপরীতে সরকারের সদুত্তর নয় তিরস্কার পেয়েছি। সম্প্রতি তিনি গণমাধ্যমে এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, গত ৪ এপ্রিল করোনাভাইরাসজনিত দুর্যোগ পরিস্থিতিতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে সহায়তায় ৮৭ হাজার কোটি টাকার বিশেষ তহবিল গঠনে সরকারের কাছে প্রস্তাব করে বিএনপি।

এই টাকা কোথা থেকে আসবে এ প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকার জনগণের কাছ থেকে যে ট্যাক্স নেয় তা থেকে। অর্থাৎ জিডিপির ৩% থেকে আমরা সংগ্রহ করতে বলেছি।

তিনি বলেন, সরকার বিভিন্নভাবে বড় বড় মেগা প্রজেক্টে খরচ করছে এটাতে কেন দিতে পারবেন না। অবশ্যই দিতে পারবে। জনগণের টাকাই তো তারা দিবে। আমেরিকাতে ক্ষতিগ্রস্থদের প্রায় আড়াই ট্রিলিয়ন ডলার দেয়া হচ্ছে। ইউকেতে বিশাল একটা অংশ সরকার বরাদ্দ দিয়েছে তা সবাই পাচ্ছেন। আমাদের দেশটা অতো ধনীর দেশ না হলেও আমরা এই জন্যই জিডিপির ৩ শতাংশের কথা বলেছি। এই ৩৫ শতাংশ জনগণের মধ্যে দেওয়া যেতে পারে।

বিএনপি মহাসচিব প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এটা সরকারের দিতে হবে ব্যাংক ঋণ হিসেবে নয়। এখানেই পার্থক্যটা বুঝতে হবে। সরকারের যে প্রস্তাবনা তার মধ্যে ৭৭ হাজার কোটি টাকা কিন্তু ব্যাংক ঋণ। তারা বাজেট এবং প্রজেক্ট থেকে বরাদ্দ করেছে ১৬ হাজার কোটি টাকা।

এই প্রস্তাবনার বিষয়ে সরকার থেকে আপনারা কোন সদুত্তর পেয়েছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমাদের সম্পর্কে বিদ্রুপের ভাষায় কথা বলা হয়েছে। এর পরের দিনই আবার প্রধানমন্ত্রী ৭৩ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনার প্যাকেজ ঘোষণা করেছিলেন আমরা প্রস্তাব দেওয়ার একদিন পরে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ