1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৮:৩৩ পূর্বাহ্ন

গাজায় প্রাণভয়ে ঘরবাড়ি ছেড়েছেন ৪ লাখ মানুষ: জাতিসংঘ

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৪০ বার

ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর বেপরোয়া বিমান হামলা ও বোমাবর্ষণে ৪ লাখের বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। শনিবার এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের মানবিক সংস্থা ইউনাইটেড নেশনস অফিস ফর দ্য কোঅর্ডিনেশন অব হিউম্যানিটারিয়ান অ্যাফেয়ার্স (ওসিএইচএ) এ তথ্য জানিয়েছে।

সংস্থাটি বলছে, গাজার মানুষ প্রাণভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। এই সংখ্যা চার লাখ ছাড়িয়েছে। সেখানে সুপেয় পানির সংকট দেখা দিয়েছে। নানা ধরনের রোগব্যাধি ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এদিকে ইসরায়েলের পক্ষ থেকে ফিলিস্তিনের উত্তর গাজা শহর খালি করতে বলার ঘোষণা প্রত্যাহার করার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। সংস্থার মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেন, এটা অবাস্তব একটা ঘোষণা। শুক্রবার উত্তর গাজার বেসামরিক ১১ লাখ মানুষকে গাজার দক্ষিণাঞ্চলে চলে যেতে ২৪ ঘণ্টার সময় বেঁধে দেয় ইসরায়েল।

এরপর সেখানে এক নজিরবিহীন দৃশ্যের অবতারণা হয়। হাজার হাজার মানুষকে দল বেঁধে উত্তরাঞ্চল ছাড়তে দেখা যায়। গণমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা গেছে, গাধা ও ঘোড়ায় টানা ভ্যান, মালবাহী ও ব্যক্তিগত গাড়িতে করে আসবাব নিয়ে শহর ছাড়ছে শত শত পরিবার। অনেকে হেঁটে রওনা হয়েছেন। মাইলের পর মাইল দীর্ঘ বাস্তুচ্যুত মানুষের সারি।

গাজা থেকে বিবিসির কূটনীতিক প্রতিবেদক পল অ্যাডামস জানান, হাজার হাজার মানুষ ছুটছেন দক্ষিণের দিকে। তাদের হাতে এক দিনের সময়। সড়ক মাত্র একটি। হোয়াইট হাউস বলছে, অল্প সময়ে এত সংখ্যক মানুষকে সরে যেতে বলাটা ‘কঠিন নির্দেশনা’। গাজায় স্থল অভিযানের দিকে এগোচ্ছে ইসরায়েল। এ লক্ষ্যেই গাজা সিটির (উত্তরাঞ্চল) বাসিন্দাদের সরিয়ে দেওয়ার আলটিমেটাম দেওয়া হয়। এ অভিযানে ভয়াবহ ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানির আশঙ্কা করছে জাতিসংঘ। তারা বলছে, এত অল্প সময়ে বিপুলসংখ্যক মানুষকে সরিয়ে নেওয়া ‘অসম্ভব’। বিশ্ব সংস্থাটি নির্দেশনা তুলে নিতে ইসরায়েলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। আগেই গাজা সীমান্তের কাছে লাখ লাখ সেনা, ট্যাঙ্ক ও নানা সামরিক সরঞ্জাম জড়ো করেছিল ইসরায়েল। রয়টার্স জানায়, শুক্রবার গাজা উপত্যকার কিছু অংশে প্রবেশ করেছে ইসরায়েলের ট্যাঙ্ক ও সাঁজোয়া যান। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মুখপাত্র রিয়ার অ্যাডমিরাল দানিয়েল হ্যাগারি বলেন, ফিলিস্তিনের রকেট সৈনিকদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছে ট্যাঙ্ক।

ইসরায়েলের অব্যাহত বিমান হামলায় গাজায় মৃত্যু বেড়ে ১ হাজার ৮৪৫ জনে পৌঁছেছে। হামাসের অভিযোগ, পলায়নরত বেসামরিক মানুষের ওপরও বোমা ফেলেছে ইসরায়েল। এতে অন্তত ৭০ জন নিহত হয়েছেন। ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী বলছে, আগামী দিনগুলোতে তারা গাজা সিটিতে বড় ধরনের অভিযান চালাবে। পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত বেসামরিক নাগরিকরা ফিরে আসতে পারবেন না।

এ জাতীয় আরো সংবাদ