1. successrony@gmail.com : Mehedi Hasan Rony :
  2. arif_rashid@live.com : Arif Rashid : Arif Rashid
  3. meherunnesa3285@gmail.com : Meherun Nesa : Meherun Nesa
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
নতুন লুকে ভাইজান বিএনপির দুটি গুণ, ভোট চুরি ও মানুষ খুন : প্রধানমন্ত্রী কোলা ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক হলেন সিরাজদিখানের তুষার সিরাজদিখানে জমির আগাছা পরিস্কারে ব্যস্ত কৃষক! সিরাজদিখানের বালুচরে বেদখল হওয়া সরকারী রাস্তা উদ্ধার! ফুটবল বিশ্বকাপ মঞ্চে লাল সবুজের পতাকা হাতে বাঙালী যুবক! সিরাজদিখানে গভীর রাতে গৃহবধূ প্রেমিকার ঘরে পরকীয়া প্রেমিক পাকরাও, থানায় হস্তান্তর! সিরাজদিখানে বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টের ২য় সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত অতিরিক্ত টাকা না দিলে ফাইল ছুড়ে ফেলে দেন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আব্দুস সামাদ!

যেসব লক্ষণে বুঝবেন অ্যাপেনডিসাইটিস

দিনলিপি নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৩৩৩ বার

তলপেটে হঠাৎ করে ব্যথা উঠলেই অনেকে মনে করেন অ্যাপেনডিসাইটিসের ব্যথা। জরুরি ভিত্তিতে অপারেশন দরকার। আসলে কথাটা ঠিক নয়। পেটে ব্যথা অ্যাপেনডিসাইটিস ছাড়াও বহুবিধ কারণে হতে পারে। ওষুধপত্রের মাধ্যমেও অনেক ক্ষেত্রে পেটের ব্যথা থেকে নিরাময় করা যায়।

অ্যাপেনডিসাইটিস কেন হয়?

অ্যাপেনডিকস হচ্ছে ছোট নলাকার একটি অঙ্গ, যা বৃহদান্ত্রের সঙ্গে সংযুক্ত থাকে। লম্বায় ২-২০ সেমি। কোনো কারণে অ্যাপেনডিকসের মধ্যে ইনফেকশন হলে এটি ফুলে যায়, প্রদাহ হয়, তখন একে বলা হয় অ্যাপেনডিসাইটিস।

কোনো কারণে অ্যাপেনডিকসে খাদ্যকণা বা ময়লা ঢুকে গেলে সেখানে রক্ত আর পুষ্টির অভাব দেখা দেয়। শুধু তাই নয়, সেখানে নানা রকম জীবাণুর আক্রমণে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে। ফলে অ্যাপেনডিকসে ব্যথা হতে শুরু করে।

যেসব লক্ষণে বুঝবেন অ্যাপেনডিসাইটিসের ব্যথা-

১. পেটে ব্যথা হয়। সাধারণত নাভির কাছ থেকে শুরু হয়ে পেটের ডান পাশে নিচের দিকে ব্যথা ছড়িয়ে পড়ে।

২. ক্ষুধামন্দা বা খিদে না পাওয়া ও বমি বমি ভাব।

৩. বমি হওয়া।

৪. ডায়রিয়া বা কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা বেড়ে যাওয়া।

৬. জ্বর জ্বর ভাব। তবে এ ক্ষেত্রে শরীরের তাপমাত্রা খুব বেশি হয় না।

৭. অ্যাপেনডিকস কোনো কারণে ফেটে গেলে পুরো পেটজুড়ে মারাত্মক ব্যথা অনুভূত হয় এবং পেট ফুলে ওঠে।

কী করবেন? এ রোগ সম্পর্কে নিশ্চিত হতে হলে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের রোগীর ওপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা বেশি জরুরি। অ্যাপেনডিসাইটিস হলে সুনির্দিষ্ট চিকিৎসা হচ্ছে অপারেশন। কারও অ্যাপেনডিসাইটিস হলে যদি অপারেশন করা না হয়, তা হলে অ্যাপেনডিকস ছিদ্র হয়ে যেতে পারে, ইনফেকশন পেটে ছড়িয়ে পড়তে পারে এবং জীবন বিপন্ন হতে পারে।

ওপরের লক্ষণগুলো দেখা দিলে দ্রুত চিকিত্সকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ